ঢাকা      বুধবার ২২, মে ২০১৯ - ৮, জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ - হিজরী

মানসিক স্বাস্থ্য ও সংক্রামক রোগসহ ১০ বিলে রাষ্ট্রপতির সম্মতি

মেডিভয়েস রিপোর্ট: রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ দশম জাতীয় সংসদের ২৩তম অধিবেশনে মানসিক স্বাস্থ্য বিল-২০১৮ এবং সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) বিলসহ পাস হওয়া ১০টি বিলে সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।

বুধবার সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

রাষ্ট্রপতির সম্মতি দেয়া বিলগুলো হচ্ছে, বাংলাদেশ প্রাণি সম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট বিল, ২০১৮, শিশু (সংশোধন) বিল, ২০১৮, হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট বিল, ২০১৮,ওজন ও পরিমাপ মানদণ্ড বিল, ২০১৮, সরকারি চাকরি বিল, ২০১৮, বাংলাদেশ শ্রম (সংশোধন) বিল, ২০১৮,বাংলাদেশ শিশু একাডেমি বিল, ২০১৮, , ২০১৮ এবং জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড বিল, ২০১৮।

মানসিক স্বাস্থ্য বিলে কী আছে?

মানসিক স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত পেশাজীবি হিসেবে কোনো ব্যাক্তি মানসিক অসুস্থতা সম্পর্কিত বিষয়ে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যা সার্টিফিকেট দিলে অনধিক ৩ লাখ টাকা অর্থদন্ড বা এক বছরের সশ্রম কারাদন্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হওয়ার বিধান রয়েছে এ বিলে।

বিলে মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় আক্রান্ত ব্যক্তির স্বাস্থ্যসেবা প্রদান, মর্যাদা সুরক্ষা, সম্পত্তির অধিকার ও পুনর্বাসন এবং কল্যাণ নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় বিধান রাখা হয়েছে। বিলে মানসিক অসুস্থতায় আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা বা অভিভাবক বা ব্যবস্থাপক নিয়োগের বিধান রাখা হয়েছে। এছাড়া মানসিক অসুস্থতায় আক্রান্ত ব্যক্তির সম্পত্তির তালিকা প্রণয়ন বা ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে অবহেলা বা আদালতের কোনো নির্দেশনা অমান্য করলে পাঁচ লাখ টাকা অর্থদন্ড বা তিন বছরের কারাদন্ড বা উভয় দন্ডে দন্ডিত হওয়ার বিধান রাখা হয়েছে।

বিলে বলা হয়েছে, আইন কার্যকরের ৯০ দিনের মধ্যে যে মানসিক হাসপাতালগুলো আছে সেগুলোকে লাইসেন্স নিতে হবে। এই আইন লঙ্ঘন করলে শাস্তি পেতে হবে। সরকারের লাইসেন্স নিয়ে বেসরকারিভাবে মানসিক হাসপাতাল স্থাপনের বিধানও রাখা হয়েছে বিলে। এছাড়া বিলে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা কার্যক্রম পরিচালনা, মানসিক স্বাস্থ্য রিভিউ ও মনিটরিং কমিটি গঠন, মানসিক অসুস্থ্য ব্যক্তির অধিকার, মানসিক রোগীর চিকিৎসার অধিকার, পুনর্বাসন, মানসিক অবস্থার বিচারিক অনুসন্ধান, মানসিক রোগীর অভিভাবকত্ব, তার সম্পত্তির রক্ষণাবেক্ষণসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সুনির্দিষ্ট বিধান রাখা হয়েছে।

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ১৯১২ সালের বিদ্যমান আইনটি মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক একমাত্র আইন। শত বছরের পুরনো এ আইনটির প্রাসঙ্গিকতা ও সময়োপযোগিতা বহু আগেই হ্রাস পেয়েছে। সে প্রেক্ষাপটে মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় আক্রান্ত নাগরিকগণের মর্যাদা সুরক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা প্রদান, সম্পত্তির অধিকার, পুনর্বাসন ও সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিতকরণে একটি যুগোপযোগী আইন প্রণয়নের প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। এ পরিপ্রেক্ষিতে শত বছরের পুরনো এ সংক্রান্ত আইনিট রহিতক্রমে ‘মানসিক স্বাস্থ্য আইন-২০১৮’ প্রণয়ন করা প্রয়োজন ও যুক্তিযুক্ত।

সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) বিলে কী আছে?

সংক্রামক রোগীকে গৃহে অন্তরীণ রাখার বিধান রেখে সংসদে পাস হয়েছে সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন- ২০১৮ বিল। পাস হওয়া নতুন আইনে সংক্রামক রোগের জীবাণুর বিস্তার ঘটানোর অপরাধে ছয় মাসের দণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

এতে প্রয়োজনে জীবাণুযুক্ত স্থাপনা জীবাণুমুক্ত করণের জন্য ধ্বংসের বিধান রেখে চিকুনগুনিয়া, ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া, কালাজ্বর, এইচআইভি (এইডস), ইবোলা, জিকা, অ্যানথ্রাক্স, এভিয়ান ফ্লুসহ ২৪টি রোগকে সংক্রামক হিসেবে চিহ্নিত করে এসব রোগ নিরাময়ে চিকিৎসা ও প্রয়োজনে রোগীকে নির্দিষ্ট কোন হাসপাতাল, স্থাপনা বা গৃহে অন্তরীণ রাখার বিধান রাখা হয়েছে।

বিলে বলা হয়েছে- কোন যানবাহন, ব্যবহার্য্য দ্রবাদি, বা পশুপাখি সংক্রামক জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত হলে ক্ষমতাপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী এসব জব্দ করতে পারবেন এবং জীবাণুমুক্ত করার ব্যবস্থা করবেন।

যদি কোন ব্যক্তি সংক্রামক রোগে মৃত্যুবরণ করেন, তাহলে ক্ষমতাপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারীর নির্দেশনা অনুযায়ী দাফন বা সৎকার করতে হবে। এছাড়া যদি কোন সংক্রামক রোগে আক্রান্ত ব্যক্তি তা গোপন করেন বা সংক্রামক রোগের জীবাণুর বিস্তার ঘটান বা ঘটাতে সহায়তা করেন, তাহলে তিনি অনুর্ধ ছয় মাসের কারাদন্ড বা অনুর্ধ্ব এক লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ডা. মুরাদ স্বাস্থ্য থেকে তথ্য মন্ত্রণালয়ে 

ডা. মুরাদ স্বাস্থ্য থেকে তথ্য মন্ত্রণালয়ে 

মেডিভয়েস রিপোর্ট: মন্ত্রিপরিষদ পুনর্বিন্যাস করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। রোববার বিকালে…

`দশ হাজার চিকিৎসক নিয়োগে অনুমোদন দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী'

`দশ হাজার চিকিৎসক নিয়োগে অনুমোদন দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী'

প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের বর্তমান সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় দেশের বিভিন্ন খাতের সঙ্গে সঙ্গে…

চিকিৎসক ও নার্সদের আর কোনো তদবির গ্রাহ্য হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চিকিৎসক ও নার্সদের আর কোনো তদবির গ্রাহ্য হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মেডিভয়েস রিপোর্ট: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ঢাকার বাইরে…

ছাত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদে উত্তাল মমেক ক্যাম্পাস

ছাত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদে উত্তাল মমেক ক্যাম্পাস

মেডিভয়েস রিপোর্ট: ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের (মমেক) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীকে রিকশাচালকের যৌন হয়রানির…

বাংলাদেশের বাজেটে স্বাস্থ্য ও চিকিৎসায় বরাদ্দ সবচেয়ে বেশি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশের বাজেটে স্বাস্থ্য ও চিকিৎসায় বরাদ্দ সবচেয়ে বেশি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মেডিভয়েস ডেস্ক: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, বাংলাদেশ সরকারের বাৎসরিক বাজেটে স্বাস্থ্য ও…

কিডনি বিকল রোগীর মৃত্যু: তিন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা 

কিডনি বিকল রোগীর মৃত্যু: তিন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা 

মেডিভয়েস রিপোর্ট: কুমিল্লায় একটি প্রাইভেট হাসপাতালে কিডনি বিকল রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় চিকিৎসকের…

আরো সংবাদ


































জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর