ঢাকা      মঙ্গলবার ১৮, ডিসেম্বর ২০১৮ - ৪, পৌষ, ১৪২৫ - হিজরী

দেশে ডায়াবেটিস রোগী ৯০ লাখ, বছরে বাড়ছে আরও ১ লাখ

ইল্লিন বিনতে মাকছুদ, মমেক: বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও বর্তমানে প্রায় প্রতিটি পরিবারেই ডায়াবেটিস এখন উদ্বেগের অন্যতম কারণ।পরিবারের প্রত্যেক সদস্যকে ডায়াবেটিস প্রতিরোধে জ্ঞানার্জন জরুরি বিষয় বলে বিবেচিত হচ্ছে।বাংলাদেশে ডায়াবেটিস রোগী রয়েছে প্রায় ৯০ লাখ, বছরে বাড়ছে আরও ১ লাখ রোগী।

এন্ডোক্রাইনোলোজি বিভাগের উদ্যোগে আজ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের গ্যালারি-১ এ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস-২০১৮ উপলক্ষে সেমিনারে এসব কথা বলেন বক্তারা।

সেমিনারের বিশেষ বক্তা ডা. এ.বি.এম. কামরুল হাসান বলেন, যে চলতি বছরের বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসের ক্যাম্পেইনে ডায়াবেটিস ব্যবস্থাপনা, যত্ন, প্রতিরোধ এবং এ সংক্রান্ত শিক্ষা বিষয়ে পরিবারের ভূমিকার ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। প্রতিদিন ডায়াবেটিস রোগীর জন্য ইনসুলিন কেনা ও রোগ মনিটর করা একটি পরিবারের জন্য বেশ ব্যয়বহুল বিষয়।সরকারের উচিত ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের ওষুধ ও ইনসুলিন প্রাপ্যতা সহজ করা। যারা কিনতে পারে না, তাদের বিনা মূল্যে সরবরাহের ব্যবস্থা করা।

বক্তারা বলেন, ডায়াবেটিসের কারণ হিসেবে বক্তারা মনে করেন যে প্রযুক্তির প্রসার ও নগরায়ণের প্রভাবে মানুষের জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাসে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। কায়িক পরিশ্রমের প্রয়োজনীয়তা হ্রাস পাওয়ার পাশাপাশি খেলাধুলা ও শরীরচর্চার স্থান ক্রমশ সংকুচিত হচ্ছে। অতিমাত্রায় ফাস্টফুড, কোমল পানীয়র মতো ক্যালরিসমৃদ্ধ খাদ্য গ্রহণের ফলে বাড়ছে স্থুলতার ঝুঁকি।ডায়াবেটিসকে প্রতিরোধ করতে হলে এ রোগের ঝুঁকি এবং প্রতিরোধের উপায় সম্পর্কে সবাইকে জানতে হবে।পরিবারের মধ্য থেকেই এ বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির কাজটি শুরু করতে হবে।

আইডিএফ-এর সর্বশেষ সমীক্ষা থেকে জানা যায়, বিশ্বে ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বর্তমানে ৪২৫ মিলিয়ন, অর্থাৎ ৪২ কোটিরও বেশি। তবে শঙ্কার বিষয় হলো প্রতি দুজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মধ্যে একজন এখনও জানতে পারছেন না যে তার ডায়াবেটিস রয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডায়াবেটিস শনাক্ত করা গুরুত্বপূর্ণ।অশনাক্ত থাকলে ঝুঁকি বহুগুণ বেড়ে যায়।প্রচলিত ওজিটিটি টেস্টের বদলে এইচবিওয়ানএসি টেস্টের মাধ্যমে স্ক্রিনিং টেস্ট করার মাধ্যমে বেশি সংখ্যক লোককে আকৃষ্ট করা সম্ভব।এতে অভুক্ত অবস্হায় পরীক্ষণের ঝামেলা থাকে না।

বিশ্বজুড়ে ডায়াবেটিস রোগ ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায়, বিশ্ব ডায়াবেটিস ফেডারেশন (আইডিএফ) ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ১৯৯১ সালের ১৪ নভেম্বরকে ডায়াবেটিস দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। এদিন বিজ্ঞানী ফ্রেডরিক বেনটিং জন্ম নিয়েছিলেন এবং তিনি বিজ্ঞানী চার্লস বেস্টের সঙ্গে একত্রে ইনসুলিন আবিষ্কার করেছিলেন।

এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিলো ডায়াবেটিস প্রতিটি পরিবারের উদ্বেগ

সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন ডা. একেএম আবুল হোসাইন, অধ্যাপক ডা. মো. নজরুল ইসলাম, অধ্যাপক ডা. চিত্ত রঞ্জন দেবনাথ, অধ্যাপক ডা. মো.আনোয়ার হোসাইন, সিদ্দিকী, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দসহ অন্যান্যরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ছোটবেলায় ইচ্ছা ছিল ডাক্তার হবো: শেখ হাসিনা

ছোটবেলায় ইচ্ছা ছিল ডাক্তার হবো: শেখ হাসিনা

মেডিভয়েস রিপোর্ট:  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আমার ছোটবেলায় ইচ্ছা ছিল ডাক্তার হবো। এসএসসি পরীক্ষা…

তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া

তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া

মেডিভয়েস রিপোর্ট: একই সাথে তিন মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন…

১০৭ চিকিৎসকের সাক্ষাৎকার শুরু ১৯ ডিসেম্বর

১০৭ চিকিৎসকের সাক্ষাৎকার শুরু ১৯ ডিসেম্বর

বিসিএস (স্বাস্থ) ক্যাডার/সিভিল সার্ভিসের কর্মকর্তাদের সিভিল সার্জন পদে পদায়নের জন্য ফিটলিস্ট প্রণয়নের…

বিএসএমএমইউতে ক্যান্সার আক্রান্ত শিক্ষিকার আত্মহত্যা

বিএসএমএমইউতে ক্যান্সার আক্রান্ত শিক্ষিকার আত্মহত্যা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ক্যান্সার আক্রান্ত এক শিক্ষিকা…

ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহারে গুরুত্ব পাচ্ছে স্বাস্থ্যখাত

ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহারে গুরুত্ব পাচ্ছে স্বাস্থ্যখাত

মেডিভয়েস রিপোর্ট: ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী ইশতেহারে স্বাস্থ্যখাতকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। এছাড়াও মূল বিষয়গুলোর…

হবু চিকিৎসকের পাশে দাড়ালেন চিকিৎসকরা

হবু চিকিৎসকের পাশে দাড়ালেন চিকিৎসকরা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: সিরাজগঞ্জের বেলকুচির প্রত্যন্ত অঞ্চলের ছেলে আরিফুল ইসলাম। বাবা একজন চা…

আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর