ডা. তাইফুর রহমান

ডা. তাইফুর রহমান

কনসালটেন্ট কার্ডিওলজি

জেনারেল হাসপাতাল, কুমিল্লা।


১১ নভেম্বর, ২০১৮ ০২:৪৭ পিএম

মিডলইস্ট সিন্ড্রোম 

মিডলইস্ট সিন্ড্রোম 

বুক ধড়ফড় করে। ঘুমাতে পারি না। হার্ট দ্রুত চলে। মাঝে মাঝে মনে হয় হার্ট বন্ধ হয়ে যায়। চোখ বন্ধ করলেই হার্টের শব্দ শুনি। অস্হির অস্থির লাগে। মাথা দিয়ে শিষ উঠে। একনাগারে বলে যায় মেয়েটি। চোখে মুখে আতঙ্কের ছাপ।

১৭-১৮ বছরের একটি মেয়ে। মেদহীন লিকলিকে শরীর। এ বয়সে চোখের নিচে কালি পড়ে গেছে। কিইবা বয়স হয়েছে তার যে হার্টের রোগ হয়ে যাবে! আমি শান্ত হতে বলি। জানার চেষ্টা করি ঘটনার পরম্পরা। হ্যাঁ, তার বিয়েও হয়ে গেছে ইতিমধ্যে। ২ বছর হল। স্বামী দুবাই থাকে। প্রতি রাতেই কথা হয়। ইমুতে দেখে দেখে কথা।

একজন ডাক্তার রোগী ঘরে ঢোকার সময়ই রোগ সম্পর্কে প্রাথমিক চিন্তা করে ফেলে। তার বয়স, পুরুষ না মহিলা, শরীরের গঠন, মোটা না চিকন, পারিবারিক অবস্থা সবকিছু বিবেচনায় নিয়েই এই চিন্তা।

আমারও রোগীটাকে দেখে একটি ধারনা এলো। রোগটা মানসিক। কিন্তু কোন রোগকে মানসিক বলতে হলে আগে অর্গানিক সব কিছুই বিবেনায় নিতে হবে। তাই কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা দিলাম। সবই নরমাল আসল। তার হার্ট ভাল, রক্তশূন্যতাও তেমন নাই, থাইরয়েড ভাল, তেমন কোন ওষুধও সেবন করছে না সে।

ফিরে এলাম তার মনের খবরে। স্বামী দুই বছর হলো বিদেশ গেছে কবে আসবে সে জানে না। শশুর বাড়িতে উদয়াস্ত পরিশ্রম করে। শশুর-শাশুড়ি আর দেবর-ননদদের সেবা করাই তার ব্রত। হ্যাঁ, মা-বাবার সেবা করার জন্যইতো ছেলে বিয়ে করেছে! ধর্মীয় পবিত্র! দায়িত্ব পালন করছে। মাস শেষে কিছু টাকা পাঠায় সেটাও মায়ের কাছে। বিয়ের সুখস্মৃতি ফিঁকে হতে তার বেশিদিন লাগেনি।

দীর্ঘশ্বাসের ধাক্কা লাগে ডাক্তারের বুকেও। বিয়েকি তবে স্বামী নামক একটি মানুষের সাথে নামটাকে বাধা। স্বামী কখন দেশে আসবে সেটাও অনিশ্চিত। সাধারণত পাঁচ বছর অন্তর ছুটি হয়, ৩-৬ মাসের। তার মানে একটানা ২০ বছর বিদেশ থাকলে ৪ থেকে ৫ বার ছুটি। সব মিলিয়ে দেড় থেকে দুই বছর পতি দেবতার চেহারা মোবারক দেখবে। জীবন যৌবন সবই গেল কয়টা টাকার পেছনে।

এখন সমস্যা হলো তাকে রোগ সম্পর্কে বলা। যদি বলি শরীরের কোন রোগ নাই, রোগটা মানসিক। সাথে সাথে শাশুড়ি-দেবর চিৎকার করে বলবে ঢং। আর মানুষের স্বামী বিদেশ থাকে না। শুধু শুধু টাকা নষ্ট। রোগীনও চিৎকার করে বলবে হায় হায় রোগ ধরা পড়ে নাই।

আর যদি বলি হার্টে রোগ আছে। তাহলেতো রোগী এখানেই শেষ!

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা
পিতাকে নিয়ে ছেলে সাদি আব্দুল্লাহ’র আবেগঘন লেখা

তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না
জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের সিসিউতে ভয়ানক কয়েক ঘন্টা

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না