ঢাকা শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬,    আপডেট ৬ ঘন্টা আগে
১০ নভেম্বর, ২০১৮ ১৩:৩৯

সারা দেশের চিকিৎসকদের জন্য সতর্কতা জারি

সারা দেশের চিকিৎসকদের জন্য সতর্কতা জারি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট:  সারা দেশের চিকিৎসকদের বিষয়ে জরুরি সতর্কতা জারি করেছে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে বিশেষ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, কর্মস্থলে নিয়মিত উপস্থিত না থাকা, রোগীদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা না দিয়ে প্রাইভেট ক্লিনিকে পাঠানো, সরকারি ঔষধ প্রেসক্রাইব, সন্তান প্রসবের সময় বিনা প্রয়োজনে সিজারিয়ান অপারেশন করা, সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদানের সময় রোগীদের নিকট থেকে ফি আদায়, রোগীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার ইত্যাদি অভিযোগের বিরুদ্ধে বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

কতিপয় চিকিৎসকদের নানা অনিয়ম নিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন সম্প্রতি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে অবজারভেশন পাঠিয়েছে বলে জানা গেছে। এরই প্রেক্ষিতে গত ৮ নভেম্বর ওই জরুরি প্রজ্ঞাপন জারি করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বৃহত্তর চট্টগ্রাম জেলার ফটিকছড়ি, কক্সবাজারের রামু ও বান্দরবানের আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়ে তাদের পর্যবেক্ষণ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আলোচিত ওই অভিযোগগুলো শুধু চট্টগ্রাম জেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিত্র নয়, এটি সারা দেশেরই চিত্র বলে জনশ্রুতি রয়েছে। অনেক ক্ষেত্রে এ অভিযোগসমূহ দালিলিক সাক্ষ্য প্রমাণ দ্বারা প্রতিষ্ঠিত করা সম্ভব না হলেও বাস্তবতা অস্বীকার করার উপায় নেই। এ অবস্থা নিরসন হওয়া প্রয়োজন মর্মে দুর্নীতি দমন কমিশন মনে করে।  এ বিষয়ে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক স্বাস্থ্য সেবা বিভাগকে জানানোর জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব রোকেয়া বেগম মেডিভয়েসকে বলেন, দুদকের অবজারভেশন পাওয়ার পর আমরা সব চিকিৎসকদের সতর্ক করে দিয়েছি। দুদক যেসব অভিযোগের বিষয় আমাদের জানিয়েছে তা যেন কোনো চিকিৎসকের ক্ষেত্রে না ঘটে সেজন্য আমরা সবাইকে বলে দিলাম।

কোনো চিকিৎসকের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে উল্লেখ করে উপসচিব রোকেয়া বেগম মেডিভয়েসকে বলেন,দুদক তো শুধু চট্টগ্রাম বিভাগের কথা বলছে, কিন্তু আমরা সারা দেশের সব চিকিৎসককে জানিয়ে দিলাম।

পরবর্তীতে মিনিস্ট্রির (স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের) মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে দুদক। 

আগের নিউজ
পরের নিউজ
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত