ঢাকা শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬,    আপডেট ৪৭ মিনিট আগে
ডা. ফাহিম উদ্দিন

ডা. ফাহিম উদ্দিন

ইন্টার্ন চিকিৎসক

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।


১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ০৯:৪৩

মাথা ব্যথার সাথে বমি মারাত্মক রোগের লক্ষণ!

মাথা ব্যথার সাথে বমি মারাত্মক রোগের লক্ষণ!

একজন ভদ্রলোক (বয়স ৩৫ এর কাছাকাছি) আমাদের ওয়ার্ডে ভর্তি পেটে ব্যথা এবং কয়েকবার বমির হিস্ট্রি নিয়ে। প্রাইমারী ডায়াগনোসিস ছিল একিউট গ্যাস্ট্রাইটিস। ইনিসিয়াল ম্যানেজমেন্টের পর দুটো সমস্যারই সমাধান হয়। 

কিন্তু দ্বিতীয় দিন সকাল বেলা যখন ওনার কাছে যাওয়া হল উনি তখন নতুন করে মাথা ব্যথার কথা বললেন, বিশেষ করে মাথার বরাবর উপরে এবং পেছনের দিকে। খুব যে মাত্রাতিরিক্ত ব্যথা তা নয়, মোটামুটি সহনীয় ব্যথা। স্বাভাবিক ভাবেই তাকে দুটো ওষুধ দেয়া হল। পাশপাশি ব্লাড প্রেসার বেশি থাকায় এন্টি হাইপারটেনসিভ ড্রাগ দেয়া হল। 

পরদিন আবার তাঁর কাছে গিয়ে শুনলাম সেই একই রকম মাথা ব্যথা। ব্যথা খুব একটা কমেনি, ২৪ ঘন্টা ধরেই কনস্ট্যান্ট একটা ব্যথা থাকছে। হসপিটালে আমরা টেনসন হেডেক, মাইগ্রেন এরকম মাথা ব্যথার অনেক রোগী পাই, তাই মাত্র দু'দিনের মোটামুটি সহনীয় মাথা ব্যথাকে এত গুরুত্ব দেয়ার কিছু নেই। তাই উনি আবারও মাথা ব্যথার কথা বলায় একজন ডাক্তার একরকম বিরক্ত হয়েই বললেন, ‘ঠিক আছে, একটা সিটি স্ক্যান করিয়ে দেখুন।’ 
(উল্লেখ্য: সিটি স্ক্যান কিছুটা ব্যয়বহুল ইনভেস্টিগেসন হওয়ায় মাত্র দুদিনের মোটামুটি সহনীয় মাথা ব্যথাতে সাধারণত কেউই করতে চান না। তাই রোগীদের আর্থিক দিক বিবেচনা করতে হয় বলে আমরাও সাধারণত এরকম মাথা ব্যথাতে ধরেই সিটি স্ক্যান করতে বলি না)। 

সিটি স্ক্যান করিয়ে সেদিন রিপোর্ট আনা হল। পরদিন সকালে রিপোর্ট দেখে একদম অবাক বনে গেলাম! রিপোর্টে লিখা: ‘Minimum Sub Arachnoid Haemorrhage.’ রিপোর্ট সম্পর্কে জানার পরপরই রোগী কিছু না বলেই চলে যাওয়াতে আর কোনো এক্সামিনেসন করাও সম্ভব হয়নি। পরে মনে হল উনি যে Vomiting এর হিস্ট্রি নিয়ে আসছিলেন সেটা হয়ত এর জন্যও হতে পারে! 

দুই.
সেদিন সকাল ৭ টার দিকে একজন রোগী আসলেন (বয়স ৫৫ এর কাছাকাছি)। রাত ১২টা থেকে ওনার মাথা যন্ত্রণা, মাথা নিচু করতে পারছিলেন না, ব্লাড প্রেসার মেপে দেখা গেলো অনেক বেশি। ফার্মেসীর দোকানদার এন্টিহাইপারটেনসিভ ড্রাগ দিলেন, সাথে হয়ত মাথা যন্ত্রণার জন্যও কোনো ওষুধ দিয়েছিলেন। সারারাতে ২-৩ বার বমি হয়েছে, সাথে ১ বার involuntary micturition এর হিস্ট্রি আছে।

সকালে যখন রোগী আসলেন তখন মোটামুটি সুস্থ মানুষের মতই হেটে হেটে এসেছেন। ব্লাড প্রেসার নরমাল, কোনো মাথা ব্যথা/মাথা যন্ত্রণা নেই। কনজারভেটিভ ম্যানেজমেন্ট দিয়ে ভর্তি রাখা হল। সকাল নয়টার দিকে হঠাৎ রোগীর খুব খিঁচুনি শুরু হল। ব্লাড প্রেসার ২২০/১০০। প্রাইমারী ম্যানেজমেন্ট দিয়ে আর্জেন্ট সিটি স্ক্যান করতে বলা হল (যদিও আগেই বলা হয়েছিল সিটি স্ক্যানের কথা)।

দেখা গেল, এই রোগীরও একই ডায়াগনোসিস: Sub Arachnoid Haemorrhage. রোগীকে আইসিইউতে শিফ্ট করা হল। একদিন পরেই রোগী এক্সপায়ার করলো।

মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ জনিত স্ট্রোকের মধ্যে এই Sub Arachnoid Haemorrhage খুবই মারাত্মক। ১০-১৫% রোগী হসপিটালে আসার আগেই মারা যান। প্রায় ৪০% রোগী প্রথম ১ সপ্তাহের মাঝেই মারা যান। ৫০% রোগী প্রথম ৬ মাসের মাঝেই মারা যান। (Reference: Medscape)
 
Sudden Severe Headache নিয়ে আসা প্রতি ৮ জনের ১ জনে এই Sub Arachnoid Haemorrhage ডায়াগনোসিস হয় (Reference: Davidson)। 

তাই Sudden Severe Headache (বিশেষ করে মাথার পেছন দিকে) এবং পাশাপাশি Vomiting থাকলে এটাকে কখনোই হালকা ভাবে দেখা ঠিক হবে না। যতদ্রুত সম্ভব হসপিটালে যাওয়া উচিত। এই মাথা ব্যথা এতটাই তীব্র যে একে বলা হয়, ‘Thunderclap Headache.’ সাধারণ মাথা ব্যথার ওষুধ বা নাপা খেয়ে ব্যথা কমতে চায় না।

তবে মাইগ্রেনের রোগীর অনেক সময় তীব্র মাথা ব্যথার সাথে বমির ভাব থাকতে পারে। তবে মাইগ্রেনের ব্যথা সাধারণত মাথার যেকোনো এক পাশ জুড়ে হয়, রোদে/আলোর তীব্রতায় গেলে ব্যথা বাড়ে, অন্ধকার রুমে গিয়ে একটু বিশ্রাম নিলে/ঘুমালে ব্যথা কমে, সাধারণ মাথা ব্যথার ওষুধ/নাপা খেয়ে ব্যথা কিছুটা কমে। অনেকের অবশ্য নাপাতে কাজ হয় না।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত