১২ অক্টোবর, ২০১৮ ০৯:৩৬ এএম

ছুটির দিনে মাত্রাতিরিক্ত ঘুমাচ্ছেন! রয়েছে হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি!

ছুটির দিনে মাত্রাতিরিক্ত ঘুমাচ্ছেন! রয়েছে হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি!

মেডিভয়েস ডেস্ক: সাপ্তাহিক ছুটি মানেই লম্বা একটা ঘুম। ছুটির দিনে আমাদের তেমন কোন রুটিন ওয়ার্ক থাকেনা। আর এজন্যই বাড়তি ঘুম আর বাড়তি রেস্ট। অনেকে মনে করেন, সপ্তাহের ৫ বা ৬ দিন পরিশ্রম করার পর শরীরের সব এলোমেলো হয়ে যায়। আর তাই তারা সকালে দেরিতে ঘুম থেকে উঠেন। এমনকি অনেকের ঘুমানোর অভ্যাস এমন যে ঘুম থেকে উঠতে লাঞ্চটাইমও পার হয়ে যায়। কিন্তু এতো ঘুম কী শরীরের জন্য ভালো? 
 
বিশেষজ্ঞদের মতে, দিনে ৬ ঘণ্টা ঘুমই যথেষ্ট। হয়তো এর চেয়ে আধ ঘণ্টা এগিক-ওদিক হতে পারে। কিন্তু, দিনে যারা ৯-১০ ঘণ্টাই ঘুমিয়ে কাটান তাদের বিপদের আশঙ্কা বেশি।সম্প্রতি বিশেষজ্ঞদের একটি তথ্যে ছুটির দিনের বেশি ঘুমানোর ভয়ংকর উদ্বেগের কথা উঠে এসেছে। তারা বলছে,ছুটির দিনে বেশি ঘুমালে হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি অনেক বেশি থাকে। জার্নাল অব ক্লিনিক্যাল এন্ডোক্রাইনোলজি এন্ড মেটাবলিজম এ তথ্যে আরও বলা হয়েছে,সাপ্তাহিক ছুটির দিনে অতিরিক্ত ঘুমের ফলে হার্টের সমস্যা বেড়ে যায় ১১ শতাংশ। গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, অতিরিক্ত ঘুম ধূমপান বা মদ্যপানের মতোই ক্ষতিকর।
 
গবেষকরা বলছে, শতকরা ৮৫ ভাগ মানুষ ছুটির দিনে বেশিক্ষণ ঘুমাতে অভ্যস্ত। ফলে স্লিপ প্যাটার্ন বা ঘুমের অভ্যাসের ব্যাপক তারতম্য ঘটে। যার ফলে শরীরে মেটাবলিক সমস্যার ঝুঁকি তৈরি হয়, রক্তের ভালো কোলেস্টেরল এইচডিএল  হ্রাস পায়, ট্রাইগ্লিসারাইড বেড়ে যায়। রক্তে ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স বাড়ে, শরীরের বডি মাস ইনডেক্স বেশি হয়। আর যদি এর সঙ্গে ফিজিক্যাল অ্যাকটিভিটি কমে যায়, খাবার দাবারেরও কোনো নিয়ম থাকে, অ্যালকোহল পান ইত্যাদি নানা ফ্যাক্টরে শারীরিক সমস্যা আরও বাড়ে।


 
তবে গবেষণার লিড অথার পিটসবার্গ ইউনিভার্সিটির গবেষক প্যার্টিসিয়া এম অং মনে করেন, কর্ম দিবসের এবং ছুটির দিনে ঘুমের অভ্যাসের তারতম্যের কারণে হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বৃদ্ধি কোনো দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব কিনা তা ভেবে দেখতে হবে। তবে এই নবীন বিশেষজ্ঞ মনে করেন সুস্থ থাকতে মানব দেহের সবকিছু চলে একটা ঘড়ির কাটার মতো। এসব হঠাৎ করে বদলে দিলেই স্বাস্থ্য সমস্যা হয়। তাই এই বিশেষজ্ঞের মতে কর্ম দিবস এবং ছুটির দিনে ঘুম, আহার অন্যান্য রুটিনের ক্ষেত্রে ব্যাপক তারতম্য হওয়া বাঞ্ছনীয় নয়।

এছাড়াও বেশ কয়েকটি মার্কিন গবেষণা রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, মাত্রাতিরিক্ত ঘুমের ফলে অবসাদ, স্মৃতি বিস্মরণ, মনঃসংযোগের অভাব, হাইপারটেনশনের মতো সমস্যা বাড়ে। যারা হাঁটাচলা কম করেন বা দিনের বেশিরভাগ সময় বসে কাটান তাদের বিপদের আশঙ্কা আরও বেশি। তাই সুস্থ থাকতে হলে অতিরিক্ত ঘুম ও অলসতা বাদ দিন।
 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত