ঢাকা      রবিবার ২১, অক্টোবর ২০১৮ - ৫, কার্তিক, ১৪২৫ - হিজরী



ডা. মাহফুজুর রহমান রাজ

ডেন্টাল সার্জন

রাজশহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে


ডেন্টাল চিকিৎসকরা কেন বিএমএর পূর্ণ সদস্য হতে পারবে না?

হঠাৎ করেই চিকিৎসক সম্মেলনকে কেন্দ্র করে একটা ইস্যু সামনে চলে এসেছে সেটা হচ্ছে, আমাদের বিএমএর সদস্য হওয়া নিয়ে। এই ইস্যু নিয়ে গত ২০১৫ ও ২০১৮ সালে দুইটা পোস্ট দিয়েছিলাম। দুই পোস্টেই কিছু কিছু মন্তব্যে পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছিল ডেন্টিস্ট্রি পেশার কিছু মানুষ আছেন যারা ডেন্টাল চিকিৎসকদের বিএমএর সদস্য হওয়া প্রবল বিরোধী। 

এই প্রসঙ্গে আমার নিজস্ব চিন্তাটা বলি, বিএমএ চিকিৎসকদের জাতীয় সংগঠন এখানে দল মত নির্বিশেষে সকলেই সদস্য। বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটি ডেন্টাল চিকিৎসকদের জাতীয় সংগঠন। স্বাচিপ ও ড্যাব রাজনৈতিক দলের অঙ্গ সংগঠন। ওই দুই সংগঠনের সদস্য নির্দিষ্ট রাজনৈতিক মতাদর্শে বিশ্বাসী ছাড়া হয় না। এখন আমরা বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটির সদস্য আছি থাকবো।

পাশাপাশি যদি আমরা বিএমএর সদস্য হই তাহলে চিকিৎসকদের সম্মিলিত বড় ইস্যুতে আমরা সংযুক্ত থাকতে পারবো। চিকিৎসা খাতের মূল অবস্থান থেকে আমরা একটু দূরে ফলে আমরা বিএমএর সাথে থাকলে এই চিকিৎসক সম্মেলনেও আমরা থাকতাম পাশাপাশি আমাদের দু-একটি দাবি সেখানে জোরের সাথে উচ্চারিত হতো। 

এখন আমার মূল প্রশ্ন বিএমএ নেতৃত্বের কাছে যে, আপনাদের সংবিধানে সাধারণ সদস্য হবার যে নিয়ম দেয়া আছে তাতে উল্লেখ আছে যে বিএমডিসির রেজিস্ট্রেশন প্রাপ্ত বাংলাদেশি চিকিৎসকগণ সদস্য হতে পারবেন। সাথে যে সকল ডিগ্রী উল্লেখ আছে তাতে বিডিএস নাই। সহযোগী সদস্য হবার নিয়মে লেখা আছে যে ডেন্টাল, নার্সিং, পশু, ভেষজ, প্রাণ রসায়ন ইত্যাদি ও চিকিৎসা শিক্ষার ছাত্র-ছাত্রীরা হবেন। 

ডেন্টাল যদি নার্সিং প্রাণ রসায়নের একটাই কাতারের থাকে তাহলে আমাদের অবস্থানটা কোথায়? আমাদের অতীত নেতৃত্ব বর্তমান স্বপ্নদ্রষ্টা নেতৃবৃন্দ বিএমএ নেতৃত্বকে বোঝাতে ব্যর্থ হয়েছে যে আমাদের অবস্থানটা কোথায়? লজ্জিত হয়ে কিছুদিন আগে একটা পোস্ট দিয়েছিলাম এই প্রসঙ্গে অতীতের ধারাবাহিকতায় নানান মিথ্যার বেসাতি দিয়ে ওই একই কীর্তন পার্টি আক্রমণ করেছিল। 

বিএমএ নেতৃবৃন্দ আমাদেরকে পূর্ণ সদস্য না করলে অন্য ক্যাটাগরিতে করতে পারেন আবার ইচ্ছা করলে পূর্ণ সদস্য করতে পারেন। তবে কিছু করেন আর না করেন  বিএমএ নেতৃত্বের কাছে আমার অনুরোধ সহযোগী সদস্য হিসাবে অন্যান্যদের সাথে ডেন্টাল শব্দটা থাকলে আমরা বিব্রত হই। পাশাপাশি আমাদের কোনো গোষ্ঠী বা সংগঠন আগ্রহী কিনা তা না দেখে সদস্য হবার সুযোগ রাখলে যার ইচ্ছা সে ব্যক্তিগতভাবে সদস্য হতে পারবে।

একটা পোস্টে দেখলাম এক কোয়াকের চিকিৎসক সম্মেলনে যাওয়া নিয়ে বিস্তর আলোচনা হচ্ছে। আমরা সকল সময় জরুরী প্রসঙ্গ বাদ দিয়ে অপ্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করি। নেতৃত্বের দুর্বলতার জন্য আমাদের অবস্থান কোথায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে তা নিয়ে আলোচনা করি না। 

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


সম্পাদকীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিদেশে ডাক্তারি পড়তে গেলে যেসব সমস্যার সম্মুখীন হবেন

বিদেশে ডাক্তারি পড়তে গেলে যেসব সমস্যার সম্মুখীন হবেন

প্রিয় বন্ধুগণ বাংলাদেশের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা শেষ। অনেকেই সরকারি মেডিকেল কলেজে চান্স পেয়েছেন আর…

গুগলে সার্চ দিয়ে রোগের লক্ষণ জানার আগে যা জানা উচিত

গুগলে সার্চ দিয়ে রোগের লক্ষণ জানার আগে যা জানা উচিত

প্রায় সবার হাতের নাগালে ইন্টারনেটের সুবিধা চলে আসায় আমরা অনেকেই অসুস্থ হলে…

শব্দযুদ্ধ?

শব্দযুদ্ধ?

ভদ্র মোরা, শান্ত বড়ো, পোষ-মানা এ প্রাণ বোতাম-আঁটা জামার নীচে শান্তিতে শয়ান।" …



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর