ঢাকা      রবিবার ২১, অক্টোবর ২০১৮ - ৫, কার্তিক, ১৪২৫ - হিজরী



মো: গোলাম মোস্তফা

চিকিৎসক ও লেখক


কাঁধের ব্যথায় ভুগছেন?

টুকটকির মা'য়ের আজ ছয় মাস যাবৎ কী যে হয়েছে দুহাত অকোজে, কোন কাজকর্ম করতে পারে না। প্রথমে বাম হাত পরে ডান হাতের কাঁধে ব্যথা হয়। ব্যথায় কান্নাকাটি করে, রাতে ঘুমাতে পারে না। মেলা ডাক্তার দেখাইছে কিছুতেই কাজ হচ্ছে না। কী হলো?

সমস্যা:
- মাথার উপরে হাত তুলতে না পারা
- মাথার চুল বাঁধতে না পারা
- পিঠ চুলকাইতে কষ্ট হওয়া
- ভারী জিনিস হাত দিয়ে তুলতে অসুবিধা 
- হাত দিয়ে যে কোন কাজ করতে গেলে ব্যথা অনুভব হয়
- হাত উঁচু করতে গেলে মনে হয়, কে যেন হাত টেনে ধরে রেখেছে!
- কাঁধের জয়েন্টের ভিতর কেমন যেন শব্দ হয়
- ব্যথায় হাঁড়ের ভিতর কামড়ে ধরে
- শীত বা ঠান্ডায় পেলে ব্যথার তীব্রতা বাড়ে
- মাঝে মাঝে দুই হাতই অবস বা ঝিনঝিন অনুভুতি হওয়া
- হাতে শক্তি কম পাওয়া

ডায়াগনোসিস:
Frozen Shoulder বা Adhesive Capsulitis:
এনাটমিক্যালভাবে Shoulder joint এর গঠন মুলত তিনটি Bones এর সমন্বয়ে Collarbone ( Clavicle), Upper Arm head (Humerus) and shoulder blade (Scapula), a Ball ও Socket Joint এবং রয়েছে Muscles, Ligament, Cartilage, Nerves supply, Blood supply সবকিছু মিলে গঠিত হয়েছে Shoulder Capsule.

যখন Frozen Shoulder হয়, তখন Shoulder Capsule Thickness ও Joint Stiffness হয়ে যায়। সাথে Brands of scar tissue যা থেকে Synovial Fluid Less হয়ে থাকে। এতে জয়েন্ট Movement Difficult হয়।

Frozen Shoulder: Due to inflammation of shoulder joint, Lack of Synovial Fluid, Injuries of Articular Cartilage or injury of Acromioclavicular or injury ligament or other truamatic.

ফ্রুজেন সোল্ডার সাধারণত জয়েন্টের দীর্ঘদিন প্রদাহ জনিত একটা রোগ। সাধারণত বয়স ৪০ এর উপরে গেলে এই রোগটি হওয়ার সম্ভবনা বেশি থাকে। পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের রোগটি বেশি হয়ে থাকে। আর ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে একদাপ এগিয়ে!

Frozen Shoulder রোগটি হওয়ার কারণসমূহ:
- No mobility দীর্ঘদিন যাবৎ হাত নড়াচড়া না করা বা কোন কাজকর্ম না করা অথবা স্থায়ী কোন কাজের গতির হ্রাস করা।
- Traumatic আঘাতজনিত সমস্যা
- Fracture (Clavicle,Arm) হাঁড় ভেঙে যাওয়া
- Systemic Disease (TB,SLE,RA)- কিছু রোগের জন্য, যেমন- টিউবারকিউলোসিস, বাতরোগজনিত!
- Diabetes Melitus (ডায়াবেটিকস জনিত সমস্যা)
- Axillary Nerve injury- স্নায়ুর ক্ষতির জন্য হতে পারে।
- Articular Cartilages Degeneration- কার্টিলেজের পরিবর্তন জনিত সমস্যা
- দীর্ঘদিন যাবৎ হাতে Plaster বা Elbow beg পরিধান করে থাকলে, যেমন- Elbow joint, Forearm Fracture এর জনিত।
- Stroke- ব্রেইন স্ট্রোক জনিত কারণে প্যারালাইসিস 
- Heart Diseases- হৃদপিন্ডের কিছু রোগের 
- Parkinson's Disease (পারকিসন'স রোগজনিত)
- Thyroid Disease (থাইরোইয়েড রোগজনিত)
- Surgery like a mastectomy (সার্জিকেল সমস্যা জনিত, যেমন- মেয়েদের স্তনের অপারেশনের ক্ষেত্রে)
- Idiopathic Causes (কিছু কারণ রয়েছে অজানা)

রোগটি অগ্রগতির ধাপ:
Freezing stage:
- Develop pain (sometimes severe) যেকোন সময়ে হাত নড়াচড়ায় তীব্র ব্যথা অনুভুতি।
- Slowly gets worse over time and hurt more at night (নির্দিষ্ট সময় অতিবাহিত হওয়ার পর ব্যথা আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে এবং রাতের দিকে আরো বেশি বেদনা বাড়তে থাকে)।
- Limited Movement shoulder (কাঁধের নড়াচড়া সীমাবদ্ধ হয়ে যায়)।

Frozen Stage:
- Pain might get better but stiffness gets worse (ব্যথা কম থাকবে কিন্তু জয়েন্ট খুবই শক্ত হবে, হাত নড়াচড়া করা খুবই অসুবিধা হবে)।
- Moving shoulder becomes more difficult and harder to get through daily activities (কাঁধের নড়াচড়া প্রায় অসম্ভব হয়ে যায়)।
- This stage can last 4-12 months (এই পর্যায়ে ৪-১২ মাস)।

Thawing stage:
- Range of motion starts to go back to Normal (স্বাভাবিক পর্যায়ে ফিরে আসবে)
- This can take anywhere from 6month to 2 years (স্বাভাবিক পর্যায়ে জয়েন্ট কার্যক্রম ফিরে আসতে ৬ মাস থেকে ২ বছর সময় লাগতে পারে)

প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা:
প্রথমত:
- X-ray: Shoulder joint Both view (এক্সরে-তে অনেক সময় জয়েন্ট স্বাভাবিক দেখা যেতে পারে, আবার অনেক ক্ষেত্রে জয়েন্ট spaces reduce, Degeneration Change of boneও কার্টিলেজের পরিবর্তন দেখা যেতে পারে)।

- Blood Sugar Fasting (রক্তের গ্লুকোজ দেখা প্রয়োজন, গ্লুকোজের পরিমাণ বেশি থাকলে, রোগী ডায়াবেটিস হয়ে থাকলে প্রয়োজনে এন্টিডায়াবেটিস ওষুধ দিতে হবে।

- Serum Creatinine (রক্তের ক্রিয়েটিনিন লেভেল দেখা দরকার। লেভেল বেশি থাকলে NSAIDs বা ব্যথানাশক ওষুধ পরিহার করতে হবে, প্রয়োজনে নেফ্রোলজিস্টের কাছে রেফারড করতে হবে)।

দ্বিতীয়ত:
রোগীর রোগের উপশম না হলে এবং অন্যান্য উপসর্গ থাকলে;
- MT (Mantoux Test): যদি টিউবারকিউলোসিস থাকে সেক্ষেত্রে এমটি টেস্ট পজিটিভ আসবে।
- Gene x-pert Test: টিউবারকিউলোসিস রোগ নির্ণয়ের জন্য Conformatory Test.
- RA test: Rheumatoid Arthritis গেঁটে বাঁত রোগ আছে কিনা সেটা দেখার জন্য! Polyarthritis আছে কিনা।
- CBC (Complete Blood Count): রক্তের শ্বেত, লোহিত রক্তকণিকা, প্লেটেলেট কাউন্ট, ইএসআর দেখা প্রয়োজন, যদি ইফেকশন বা ইনফ্লামেশন থাকে সেক্ষেত্রে রিপোর্ট অস্বাভাবিক আসবে! ESR বেড়ে যেতে পারে, WBC, RBC কমে অথবা বেড়ে যেতে পারে)।
- MRI- এমআরআই টেস্ট করে জয়েন্টের সবকিছু সুস্পষ্টভাবে বুঝা যেতে পারে!
- ECG/Echo : হৃদপিন্ডের সমস্যা থাকলে সেক্ষেত্রে ইসিজি ও ইকোকার্ডিওগ্রাম টেস্ট করা বাঞ্চনীয়। প্রয়োজনে অন্যান্য টেস্ট করা যেতে পারে।

রোগ নিরাময়ের উপায়:
প্রথম ধাপ: 
মেডিকেশন: ব্যথা নিবারণের জন্য ব্যথানাশক, NSAIDs. 
- Tab.Sulindac/Aceclofanc (100/200mg) অন্যান্য নন-এন্টি-ইনফ্লামেটরি ড্রাগসের চেয়ে বেশি কার্যকরী। প্রত্যহ দুইবেলা দেওয়া যেতে পারে!
- Tab.Beclofen (5,10,25mg)- মাসোল রিলাক্স এর জন্য বেক্লোফেন কার্যকরী বয়স্ক রোগীদের ৫ মি:গ্রাম দিয়ে শুরু করা বাঞ্চনীয়। কারণ Centrally Acting করে। সাইড ইফেক্ট মাথা ঘোরা, বমিবমি ভাব লাগতে পারে।
- Cap.PPI (20mg)- ব্যথানাশক ওষুধ GIT আলসার রক্ষার্থে গ্যাস্ট্রিকের ওষুধ দেওয়া বাধ্যতামূলক।
- Tab.Thiamine+Pyridoxine+Cyanocobalamin প্রত্যহ দুই/তিন বেলা দেওয়া যেতে পারে, Regeneration of Nerve fibers জন্য।

ব্যায়াম ও ফিজিওথেরাপি:
Frozen shoulder ম্যানেজমেন্ট করার জন্য দীর্ঘদিন ব্যায়ামের কোন বিকল্প নাই।

গৃহে করণীয়: 
- ওয়াল ধরে দুহাত নিচের দিক থেকে উপরে তোলা প্রত্যহ ৩০ বার, তিন বেলা -২ মাস।
- উঁচু বা মগ ডালে পুলি বা রশি বেঁধে উপরের নিচে টেনে নামানো উঠানো ১০ মিনিট করে -২ মাস।
- Extension an Flexion, Active + passive movement করানো ৫ মিনিট করে, দিনে ৩ বার -২ মাস।
- পুকুরে বা নদীতে সাঁতারে গোসল করা।
- বাম হাত দিয়ে ডান কান, ডান হাত দিয়ে বাম কান ধরার চেষ্টা করা।
- পিঠ চুলকানোর চেসষ্ট করা।
- নিজের কাপড়-চোপড় নিজেই পরিধান করার চেষ্টা করা।
- দুই হাতে ভারী কাজ না করা।
- Hot water Beg এ গরম পানি ভর্তি করে গরম সেক দেওয়া প্রতিদিন দুইবেলা ১৫ মিনিট করে, এতে ব্যথা অনেকটা নিরাময় হবে।

ফিজিওথেরাপি:
- UST: প্রত্যহ ১০ মিনিট shoulder Joint এ -২১ দিন! (তীব্র ব্যথা থাকলে Naproxen gel সঙ্গে আল্ট্রাসাউন্ড থেরাপি দিলে ব্যথা অনেকটাই কমে যায়।
- SWD: প্রত্যহ ১০ মিনিট Shoulder Joint এ- ২১ দিন।
- TENS: প্রত্যহ ১০ মিনিট Shoulder Joint এ- ২১ দিন।

দ্বিতীয় ধাপ:
প্রথম ধাপের রোগীর চিকিৎসা ফলপ্রসূ না হলে সেক্ষেত্রে পরবর্তী পদক্ষেপ।

Medication:
- Injection Corticosteroids (Methyleprednisolone Acetate 40mg/ml or Triamcinolone Acetonide 40mg/ml) IA (intra-Articular)- ১টি করে ১৫ দিন অন্তর মোট দুই/তিনটি (বি:দ্র- ডায়াবেটিস রোগীদের Corticosteroids injection কোন ফলপ্রসূ রেজাল্ট পাওয়া যায় না)।
- Tab.Chondroitin + Glucosamine- প্রত্যহ দুইবেলা, ২ মাস (Stimulation of cartilage formation, repair cartilage and reduce synovial inflammation) + সাথে ব্যায়াম ও ফিজিওথেরাপি চলবে। এই ধাপেই ৯০% রোগীরা সুস্থ হয়ে যায়।

তৃতীয় ধাপ:
১ম + ২য় ধাপ ফেইলর, সেক্ষেত্রে পরবর্তী স্টেজ যেতে হবে।
- MUA (Manipulation Under Anesthesia)
- Surgery-Arthroscopy
৩য় ধাপে অনেক বেশি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে।

এবার টুকিটুকির মায়ের ২য় ধাপের চিকিৎসায় ভাল হয়ে গেছে। একমাস পর ডাক্তারের চেম্বারে দুধ, কলা ও তালের পিঠা নিয়ে হাজির। মাথায় হাত বুলিয়ে বাবা বেঁচে থাকো। আজ থেকে তুমি আমার বাবা, এই বলেই প্রস্থান। 

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

মুলারিয়ান এজেনেসিস: প্রকৃতির অবিবেচক খেয়াল ও প্রমিতির কান্না

মুলারিয়ান এজেনেসিস: প্রকৃতির অবিবেচক খেয়াল ও প্রমিতির কান্না

প্রমিতি, বয়স- ১৬। এইচএসসি ১ম বর্ষে পড়ে। প্রাণবন্ত, উচ্ছ্বল প্রজাপতির মতো। যখন কথা…

বউয়ের জন্য আমার পুলাডার আজ এই অবস্থা!

বউয়ের জন্য আমার পুলাডার আজ এই অবস্থা!

বউয়ের হাওয়া ভাল না, বিয়ের তিনমাস না যেতেই স্বামী অসুস্থ! মন্টু মিয়ার…

প্রি মিনস্ট্রুয়াল সিনড্রোম

প্রি মিনস্ট্রুয়াল সিনড্রোম

আচ্ছা! প্রি মিনস্ট্রুয়াল সিনড্রোম নিয়ে একটু কথা বলি। প্রায় আশিভাগ মেয়েই এই…

ভাগ্যের নির্মম পরিহাস

ভাগ্যের নির্মম পরিহাস

২০১০ সালের জুন মাসে ঘটে যাওয়া নিমতলী ট্র্যাজেডির কথা কি মনে আছে?…

মাথা ব্যথার সাথে বমি মারাত্মক রোগের লক্ষণ!

মাথা ব্যথার সাথে বমি মারাত্মক রোগের লক্ষণ!

একজন ভদ্রলোক (বয়স ৩৫ এর কাছাকাছি) আমাদের ওয়ার্ডে ভর্তি পেটে ব্যথা এবং…

ত্বকের সমস্যা অতিরিক্ত গ্লুকোজের লক্ষণ প্রকাশ করতে পারে

ত্বকের সমস্যা অতিরিক্ত গ্লুকোজের লক্ষণ প্রকাশ করতে পারে

অ্যাকানথোসিস নিগরিকান্সে আক্রান্ত হলে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ত্বকের রঙ সাধারণত কৃষ্ণকায় কালো…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর