ডা. ফাহমিদা শিরীন নীলা

ডা. ফাহমিদা শিরীন নীলা

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী)

ফিগো ফেলো (ইতালি)

গাইনী কনসালট্যান্ট, বগুড়া।


০৮ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:৩৮ এএম

নবজাতক শিশুর মৃত্যু প্রতিরোধে করণীয়

নবজাতক শিশুর মৃত্যু প্রতিরোধে করণীয়

নবজাতক শিশুমৃত্যু প্রতিরোধে কিছু সতর্কতা যা সাধারণ মানুষের অবশ্যই অনুসরণ করা উচিত।

নবজাতক শিশুর মৃত্যু প্রতিরোধে করণীয়:

১. গর্ভকালীন সময়ে নিয়মিত গাইনী ডাক্তারের নিকট বা নিকটস্থ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চেকআপ করুন।

২. গর্ভবতী মায়েদের বিপদচিহ্নসমূহ সম্পর্কে জানুন এবং সে ব্যাপারে সতর্ক থাকুন।

৩. বাসায় প্রসব করানো থেকে বিরত হয়ে যেকোন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে প্রসব করানোর ব্যবস্থা করুন।

৪. প্রসবের পর যত দ্রুত সম্ভব মায়ের বুকের শালদুধ খাওয়ানো শুরু করুন এবং ছয়মাস বয়স পর্যন্ত শিশুকে শুধুমাত্র বুকের দুধ খাওয়ান।

৫. বাচ্চা প্রসবের পর কিছুটা বিলম্বে জীবাণুমুক্ত উপায়ে নাভী কাটুন।

৬. বাচ্চার নাভীতে যথাযথ মাত্রায় হেক্সিকর্ড লাগানো নিশ্চিত করুন।

৭. বাচ্চাকে জীবাণুমুক্ত উপায়ে যথাযথভাবে পরিচর্যা করুন। এ ব্যাপারে প্রয়োজনে স্বাস্থ্যকর্মীর সহায়তা নিন।

৮. সময়ের পূর্বেই অপরিপক্ব বাচ্চা কিংবা প্রয়োজনের তুলনায় কম ওজনের বাচ্চা প্রসব করলে অতিরিক্ত সাবধানতা অবলম্বনসহ বিশেষায়িত পরিচর্যার ব্যবস্থা করুন। এক্ষেত্রে ক্যাঙ্গারু মা সেবাসহ সকল সেবা সম্পর্কে স্বাস্থ্যকর্মীর নিকট হতে জ্ঞান অর্জন করুন। 

৯. বাচ্চা জন্মের পর যত দ্রুত সম্ভব জন্মগত ত্রুটি সনাক্ত করুন এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করুন।

১০. নবজাতক শিশুর বিপদচিহ্ন সমূহ সম্পর্কে জানুন এবং সে সকল চিহ্ন দেখা দেয়া মাত্র নিকটস্থ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যোগাযোগ করুন।

১১. উল্লেখিত বিপদচিহ্ন ছাড়াও প্রসবের পরে মা বা শিশুর যেকোন ধরনের জটিলতা দেখা দিলে অতি সত্তর নিকটস্থ স্বাস্থ্যকেন্দ্র বা স্বাস্থ্যকর্মীর সাথে যোগাযোগ করুন।

১২. নিয়ম অনুযায়ী গর্ভবতী মা এবং নবজাতক শিশুর সকল টিকা প্রদান নিশ্চিত করুন।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত