২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১০:৩০ এএম

তিন মেডিকেল কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগ

তিন মেডিকেল কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগ

মেডিভয়েস রিপোর্ট: সিরাজগঞ্জের শহীদ এম. মনসুর আলী মেডিকেল, নীলফামারী মেডিকেল কলেজ ও নোয়াখালীর আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগ দিয়েছে সরকার। বুধবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে তাদের পদায়ন করা হয়। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপসচিব মোহাম্মদ মোহসীন উদ্দিন স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এ আদেশ জনস্বার্থে জারি করা হলো এবং অবিলম্বে কার্যকর হবে।

সিরাজগঞ্জের শহীদ এম. মনসুর আলী মেডিকেল কলেজে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন শিশু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. রফিকুল ইসলাম। তিনি ওএসডি হিসেবে একই মেডিকেলে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও ও শিশু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন।

নীলফামারী মেডিকেল কলেজে নিয়োগ পেয়েছেন এনাটমি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক  ডা. মো. রবিউল ইসলাম শাহ। তিনি বর্তমানে খুলনা মেডিকেলে এনাটমি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। 

নোয়াখালীর আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ফার্মাকোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. আবদুছ ছালাম। তিনি ফার্মাকোলজি বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে মানিকগঞ্জের কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজে সংযুক্ত ছিলেন।

নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত অধ্যক্ষদের মেডিভয়েসের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

এর আগে গত ৯ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে নেত্রকোনা, চাঁদপুর, নওগাঁ ও মাগুরা মেডিকেলে কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগ দেয় সরকার। ওই প্রজ্ঞাপনে নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) পদে নিয়োগ পান অধ্যাপক ডা. এ কে এম সাদিকুল আজম। সর্বশেষ তিনি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওএসডি হিসেবে টাঙ্গাইলের শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ গাইনি এন্ড অবস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন।

চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পান ডা. জামাল সালেহ উদ্দীন। সর্বশেষ তিনি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওএসডি হিসেবে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের শিশু সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন।

নওগাঁ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত)  হিসেবে নিয়োগ পান ডা. মো. আব্দুল বারী। সর্বশেষ তিনি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওএসডি হিসেবে অর্থোপেডিক্স সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে সংযুক্ত ছিলেন।

মাগুরা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পান অধ্যাপক ডা. অলোক কুমার সাহা। সর্বশেষ তিনি ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের শিশু বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি