ঢাকা      সোমবার ১৯, নভেম্বর ২০১৮ - ৪, অগ্রাহায়ণ, ১৪২৫ - হিজরী



ডা. গুলজার হোসেন উজ্জল

রেসিডেন্ট,
হেমাটোলজি বিভাগ
বিএসএমএমইউ।


ডেঙ্গু জ্বর যখন বিপজ্জনক!

লক্ষণ ভেদে ডেঙ্গুকে আমরা কয়েকটি ভাগে ভাগ করি। 
- ডেঙ্গু ফিভার
- হিমোরেজিক ডেঙ্গু

হিমোরেজিক ডেঙ্গুর দুই রকম প্রেজেন্টেশন হতে পারে। 
- সাধারণ হিমোরেজিক ডেঙ্গু
- ডেঙ্গু শক সিনড্রোম

সাধারণ ডেঙ্গু ফিভার নিয়ে ভয়ের তেমন কারণ নেই। এটা সাধারণ ভাইরাস জনিত জ্বরের মতই নিজে নিজে ঠিক হয়ে যায়। সাধারণ ডেঙ্গু ফিভারেও প্লেইটলেট কমে যেতে পারে এবং র‌্যাশ বা ত্বকে ছোপ ছোপ লাল দাগ হতে পারে।

হিমোরেজিক ডেঙ্গু
প্লেইটলেট কমে গিয়ে র‌্যাশ বা ত্বকের লাল ছোপ ছোপ দাগের পাশাপাশি বিশেষ ধরণের রক্তক্ষরণ দেখা দিলে তাকে হিমোরেজিক ডেঙ্গু বলে। এই বিশেষ ধরণের রক্ত ক্ষরণ বলতে মাড়ি দিয়ে রক্ত পড়া, নাক দিয়ে রক্ত পড়া, চোখ লাল হয়ে যাওয়া, পায়খানার সাথে রক্ত যাওয়া, রক্ত বমি হওয়া ইত্যাদি বুঝায়। সাধারণ হিমোরেজিক ডেঙ্গু নিয়েও আতংকিত হবার তেমন কারণ নেই।

ডেঙ্গুর ভাইরাস চার ধরণের হয়৷ বিশেষ ভাইরাসের এন্টিজেনের কারণে শরীরের ইমিউন সিস্টেমের বিশেষ প্রতিক্রিয়ায় রক্তনালীর ছিদ্র বড় হয়ে যায়। তখন রক্তনালী থেকে রক্তরস বা প্লাজমা বেরিয়ে আসে। একে বলে প্লাজমা লিকেজ। এই অবস্থায় প্রেশার কমে যায়, পালস দুর্বল হয়ে যায়, ফুসফুস ও পেটে পানি জমে ইত্যাদি। সেই সাথে রক্তের হেমাটোক্রিট বা রক্তের কোষীয় অংশের অনুপাত বেড়ে যায়। এই অবস্থাটিই মূলত ডেঙ্গুর জটিল অবস্থা।

ডেঙ্গু শক সিনড্রোম
তবে সবচেয়ে জটিল অবস্থা হলো ডেঙ্গু শক সিনড্রোম। প্লাজমা লিকেজের ফলে ডেঙ্গু রোগীর যখন প্রেশার কমে যায়, নাড়ির গতি বেড়ে যায় ও নাড়ি দুর্বল হয়ে যায়, রোগী অচেতন হয়ে যায় বা অস্থির হয়ে যায় তখন একে বলে ডেঙ্গু শক সিনড্রোম। এই অবস্থায় রোগীকে আইসিইউতে নিতে হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


পাঠক কর্নার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

‘হে ঈশ্বর এটাই শেষ কেইস, আর ডেলিভারি রোগীর দায়িত্ব নেব না!’

‘হে ঈশ্বর এটাই শেষ কেইস, আর ডেলিভারি রোগীর দায়িত্ব নেব না!’

প্রতিবছর রেসিডেন্সির রেজাল্ট দিলে আমি দেখতে চেষ্টা করি কোন ছেলে চান্স পেলো…

চাতক চাতকী

চাতক চাতকী

গাইনী আউটডোরে দেখতাম প্রায়ই রোগী আসে এবরশন করানোর জন্য। কখনও আসে কিভাবে…

মেয়ের বাবা ও ডাক্তারের গল্প

মেয়ের বাবা ও ডাক্তারের গল্প

ফ্ল্যাটের এক আঙ্কেল সরকারি এক ব্যাংকের রিটায়ার্ড উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। ভদ্রলোককে আমি বেশ…

ভালোবাসার এপিঠ-ওপিঠ

ভালোবাসার এপিঠ-ওপিঠ

তরুণী শাওনের মাঝবয়সী হুমায়ুন আহমেদ এর প্রেমে পড়ার কথা শুনে অনেকেই ভ্রু…

ইভিডেন্স বেসড মেডিসিন

ইভিডেন্স বেসড মেডিসিন

আমি তখন মেডিকেল কলেজে ৫ম বর্ষের ছাত্র। হঠাৎ খেয়াল করলাম চান্দি খালি…

বব ভাই

বব ভাই

বব ভাইকে চিনি প্রায় আঠার বছর। যখন আমি NITOR (পঙ্গু হাসপাতাল) এ…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর