ঢাকা      মঙ্গলবার ১৬, জুলাই ২০১৯ - ৩১, আষাঢ়, ১৪২৬ - হিজরী

প্রফেসর ডা. আবুল কাশেম চৌধুরী আর নেই

মেডিভয়েস রিপোর্ট: দেশের মাইক্রোবায়োলজির অন্যতম পথিকৃৎ প্রফেসর ডা. আবুল কাশেম চৌধুরী আর নেই। শুক্রবার ভোর ৬টায় বিএসএমএমইউর কেবিন ব্লকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। 

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, এক মেয়ে, আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।তার স্ত্রী বর্তমানে ড. নার্গিস আখতার বিএসএমএমইউর ডারমাটোলজি ডিপার্টমেন্টের প্রফেসর পদে কর্মরত।

প্রফেসর ড. আবুল কাশেম চৌধুরী কর্মজীবনে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল ইউনিভারসিটির মাইক্রোবায়োলজি ডিপার্টমেন্টের প্রফেসর ছিলেন। সর্বশেষ তিনি রাজধানীর মগবাজারে অবস্থিত কমিউনিটি মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি ডিপার্টমেন্টের বিভাগীয় প্রধান ছিলেন। 

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, তিনি খুব মৃদুভাষী ছিলেন। মানুষকে তিনি আপ্যায়ন করতে খুব পছন্দ করতেন। আত্মীয়-অনাত্মীয়, কেউ না কেউ পাশে না থাকলে সব সময় মনমরা হয়ে থাকতেন। এছাড়াও তিনি ঘটকালি করতে বিশেষ পছন্দ করতেন। তিনি বলতেন, মানুষে মানুষে মিলন ঘটানোর চেয়ে আনন্দের কিছু নেই। 

শুক্রবার বাদ জুমা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল ইউনিভার্সিটি মসজিদের সামনে অনুষ্ঠিত হয়। আর বাদ আসর দ্বিতীয় জানাযা অনুষ্ঠিত হবে পান্থপথ মসজিদের সামনে। 

চিকিৎসক মহলে শোকের ছায়া: অধ্যাপক ডা. আবুল কাশেম চৌধুরীর মৃত্যুতে চিকিৎসক মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। তিনি এক শোক বিবৃতিতে অধ্যাপক ডা. মো. আবুল কাশেম চৌধুরীর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

বিএসএমএমইউতে নামাজে জানাজা শেষে আবুল কাশেম চৌধুরীর কফিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার পক্ষে পুষ্পস্তবক অপর্ণের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএসএমএমইউর মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহ, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এ বিএম আব্দুল হান্নান, সাবেক রেজিস্ট্রার ও বর্তমানে ফার্মাকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. সায়েদুর রহমান, মাইক্রোবায়েলজি অ্যান্ড ইমিউনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আহমেদ আবু সালেহ, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (হাসপাতাল) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আব্দুল্লাহ আল হারুন প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আরও পাঁচ চিকিৎসকের অধ্যাপক পদে পদোন্নতি 

আরও পাঁচ চিকিৎসকের অধ্যাপক পদে পদোন্নতি 

মেডিভয়েস রিপোর্ট: অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন আরও পাঁচজন চিকিৎসক। গত চার জুলাই…

ডাক্তারি সনদ ছাড়াই মা ও শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ!

ডাক্তারি সনদ ছাড়াই মা ও শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ!

মেডিভয়েস রিপোর্ট: লক্ষ্মীপুরে এমবিবিএস সনদ ছাড়াই নিজেকে ডাক্তার এবং মা ও শিশুরোগ…

জন্মনিয়ন্ত্রণ সামগ্রী ব্যবহারে বাংলাদেশ এগিয়ে আছে: রাষ্ট্রপতি

জন্মনিয়ন্ত্রণ সামগ্রী ব্যবহারে বাংলাদেশ এগিয়ে আছে: রাষ্ট্রপতি

মেডিভয়েস রিপোর্ট: রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, পরিসংখ্যান অনুযায়ী ১৯৯৪ সালে বিশ্বের…

টাঙ্গাইলে ট্রাকচাপায় উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা নিহত

টাঙ্গাইলে ট্রাকচাপায় উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা নিহত

মেডিভয়েস রিপোর্ট: টাঙ্গাইলে সখীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আলাউদ্দিন আল…

সারাদেশে আরও বিশেষায়িত ও উন্নত হাসপাতাল হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

সারাদেশে আরও বিশেষায়িত ও উন্নত হাসপাতাল হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মেডিভয়েস রিপোর্ট: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, বাংলাদেশে সরকারি…

কমিউনিটি ক্লিনিকের কার্যক্রম আরও জোরদার করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

কমিউনিটি ক্লিনিকের কার্যক্রম আরও জোরদার করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

মেডিভয়েস রিপোর্ট: দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতকরণে কমিউনিটি ক্লিনিকের কার্যক্রম আরও…

আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর