ঢাকা      মঙ্গলবার ২৩, অক্টোবর ২০১৮ - ৮, কার্তিক, ১৪২৫ - হিজরী



ডা. এম. ফরহাদ

মেডিসিন ও স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ


ভালসারটান ওষুধে কি ক্যান্সার হতে পারে?

ভালসারটান, উচ্চ রক্তচাপ চিকিৎসায় জনপ্রিয় এক ওষুধের নাম। জনপ্রিয়তার অনেক কারণের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, উচ্চ রক্তচাপ ছাড়াও এই ওষুধ হার্টের ও কিডনির কিছু রোগের জন্য বেশ উপকারি। 

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের ঔষধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফুড অ্যান্ড ড্রাগস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) এর রিপোর্টে ‘ভালসারটান, ওষুধ সেবনে লিভার, ফুসফুস ও স্তন ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে’ বলা হয়েছে শীর্ষক বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়। 

এরই প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক এই ঔষধ বাজার থেকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই ঔষধের কাঁচামাল যেন অন্য কোনো ঔষধে ব্যবহৃত না হয় সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি দেয়ার জন্য সব ঔষধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। 

পাশাপাশি এই ঔষধ ব্যবহার না করার লক্ষ্যে জনসচেতনতা বাড়াতে একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেল দ্বারা যাচাই-বাছাই করে মতামতসহ গণমাধ্যমে সচেতনতামূলক বিজ্ঞপ্তি প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঔষধ প্রশাসনের প্রতি নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। 

আসুন দেখে নেই ভালসারটান ওষুধটা কতটা ক্ষতিকর এবং যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) কী বলেছিল তাদের রিপোর্টে।

ভালসারটান কী?
ভালসার্টান এনজিওটেনসিন রিসেপ্টর ব্লকার জাতীয় প্রেসার বা উচ্চ রক্তচাপের ওষুধ। অনেকদিন ধরে এই ওষুধটা উচ্চ রক্তচাপের ওষুধ হিসাবে বেশ জনপ্রিয়। উচ্চ রক্তচাপ ছাড়াও মায়োকার্ডিয়াল ইনফার্কশন নামক হার্ট অ্যাটাক, হার্ট ফেইলিউর এবং ডায়াবেটিক কিডনি রোগসহ প্রস্রাবে প্রোটিন চলে যাওয়া কিডনি রোগে বেশ উপকারি।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কী?
ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ এন্ড হিউম্যান সার্ভিসের আওতাধীন শক্তিশালী ঔষধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। যা ৩০ জুন ১৯০৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এর প্রধান কার্যালয় যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ডের নিউ হ্যাম্পসায়ার এভিনিউতে অবস্থিত। এই সংস্থার অনেক কাজের মধ্যে ঔষধ, টিকা, খাদ্যদ্রব্য মানুষের শরীরের জন্য কতটুকু নিরাপদ তা নির্দেশ করে, এবং নিরাপদ ওষুধসমূহকে যুক্তরাষ্ট্রে বাজারজাত করার অনুমতি প্রদান করে। পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে পরীক্ষা করে বিধায়, যুক্তরাষ্ট্রের ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কতৃক এপ্রুভড্ হলে, মোটামুটি নির্দিধায় বলা যায় এই ওষুধ মানুষের শরীরের জন্য নিরাপদ।

ভালসারটানে কি ক্যান্সার হতে পারে?
চিকিৎসা বিজ্ঞানের এই পর্যন্ত তথ্য মতে ভালসারটান সেবনে ক্যান্সার হওয়ার কোন আশংকা নেই। কিন্তু ভালসারটানের কাঁচামালে NDMA নামক পদার্থের উপস্থিতিই মানব দেহের ক্যান্সারের জন্য দায়ী। 

যুক্তরাষ্ট্রের ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন সতর্কতায় আসলে কী ছিল?
১৩জুলাই ২০১৮ (আপডেটেড ১৭ জুলাই ২০১৮)-তে প্রকাশিত যুক্তরাষ্ট্রের ফুড এন্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের সংবাদের সারসংক্ষেপ হলো- ভালসারটান নয়, এর কাঁচামালে NDMA নামক পদার্থের উপস্থিতিই মানব দেহের ক্যান্সারের জন্য দায়ী। 

এই NDMA এর উপস্থিতি যুক্তরাষ্ট্রের গুটি কয়েক ঔষধ কোম্পানি ( Major Pharmaceuticals, Solco Healthcare, Teva Pharmaceuticals Industries Ltd) এর ভালসারটানে পাওয়া গিয়েছে, যারা চীনের Zhejiang Huahai Pharmaceuticals, এর কাঁচামাল ব্যাবহার করেছেন। 

তাদের রিপোর্টে আরও বলা হয়, এসব কোম্পানি ছাড়া অন্যগুলোর ভালসারটানে NDMA এর উপস্থিতি পাওয়া যায়নি, তাই ব্যাবহার করতে কোন সমস্যা নাই। রোগী যারা ভালসারটান সেবন করছেন, তাদেরকে তাদের চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। চিকিৎসক কোম্পানি পরিবর্তন করবেন অথবা ওষুধ পরিবর্তন করবেন।

রোগ চিকিৎসার জন্য ওষুধের প্রয়োজন যেমন অপরিহার্য, তেমনি এই ওষুধ নিরাপদও হতে হয়। এই ওষুধ যদি ক্যান্সারের মত প্রাণঘাতী রোগের ঝুঁকি তৈরি করে, তাহলে তো ভয়ঙ্কর ব্যাপার। আর এটাও লক্ষ্যণীয় যে, এই ঝুঁকি বিবেচনায় ভালসারটানের মত একটা ভাল ওষুধ যেন হারিয়ে না যায়। এজন্য আমাদের দেশে ঢালাওভাবে সব কোম্পানির ঔষধ বন্ধ না করে, যুক্তরাষ্ট্রের ফুড এন্ড ড্রাগস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মত কোন কোন কোম্পানির ঔষধে NDMA এর উপস্থিতি আছে তা পরীক্ষা করে নিষিদ্ধ করা দরকার।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


সম্পাদকীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

গুগলে সার্চ দিয়ে রোগের লক্ষণ জানার আগে যা জানা উচিত

গুগলে সার্চ দিয়ে রোগের লক্ষণ জানার আগে যা জানা উচিত

প্রায় সবার হাতের নাগালে ইন্টারনেটের সুবিধা চলে আসায় আমরা অনেকেই অসুস্থ হলে…

‘অধিকার অর্জন করতে হলে আন্দোলনের পথে হাঁটো’

‘অধিকার অর্জন করতে হলে আন্দোলনের পথে হাঁটো’

৭ অক্টোবর চিকিৎসক সম্মিলনীতে সরকার প্রধান বুঝিয়ে দিলেন– ‘অধিকার অর্জন করতে হলে…

শব্দযুদ্ধ?

শব্দযুদ্ধ?

ভদ্র মোরা, শান্ত বড়ো, পোষ-মানা এ প্রাণ বোতাম-আঁটা জামার নীচে শান্তিতে শয়ান।" …

আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর