ঢাকা      বৃহস্পতিবার ২০, সেপ্টেম্বর ২০১৮ - ৫, আশ্বিন, ১৪২৫ - হিজরী



ডা. মৃণাল সাহা

চিকিৎসক, লেখক ও মেডিসিন বিষয়ে উচ্চতর প্রশিক্ষণরত।


মেডিকেল অবকাঠামো বিষয়ক প্রস্তাবনা

ইন্সটিটিউশান বেইজড প্র‍্যাক্টিসের বিকল্প আর কিছুই হতে পারে না। যার মান নিয়ন্ত্রন করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশান, বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিলের সমন্বয়ে গঠিত চুড়ান্ত কমিটি।

যে কোন সরকারি বা বেসরকারি মেডিকেল কলেজ অথবা স্পেশালাইজড হাসপাতাল ছাড়া আর কোথাও কোন প্রাইভেট চেম্বার বা ডায়গনস্টিক ল্যাব থাকবে না। ড্রাগ রুল এন্ড রেগুলেশান মেনে ২০-৩০ টা কোম্পানীর বাইরে কাউকেই লাইসেন্স দেয়া হবে না।

সরকারি বা বেসরকারি মেডিকেল থেকেই এমবিবিএস, এমডি, এমএস দেয়া হবে। এটা নিয়ন্ত্রিত হবে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। যেমন- বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।

মেডিকেল ইথিকস ও হাসপাতালে উদ্ভুত যাবতীয় সাংঘর্ষিক ও আইনী বিষয়ে অভিযোগের জন্য মেডিকেল জুরিস্পুডেন্স তথা ফরেনসিক মেডিসিন ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেয়া হবে। সেই সাথে লোকাল থানার কোলাবরেশানে একটা পুলিশ ফোর্স সমন্বয়ে ভ্রাম্যমান থানাও থাকবে।

এই অবকাঠামো আমি প্রস্তাব করলাম। বাকীটা গুনীজনদের ওপর ছেড়ে দিলাম।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


সম্পাদকীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে কেন আত্মহত্যা প্রবণতা?

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে কেন আত্মহত্যা প্রবণতা?

মুশফিক মাহবুব নামে ঢাকা ভার্সিটির এক ছাত্র সম্প্রতি ফেইসবুকে একটি স্টাটাস দেওয়ার…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর